চিয়া সীড : স্বাস্থ্য উপকারিতা, পুষ্টি এবং পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

কর্তৃক সরকারি আদেশ
0 মন্তব্য 1325 views

আপনি কি আপনার স্বাস্থ্য বাড়াতে এবং আপনার ডায়েটে কিছু বৈচিত্র্য যোগ করার জন্য একটি প্রাকৃতিক উপায় খুঁজছেন? চিয়া সীড দেখুন না! এই ক্ষুদ্র পাওয়ারহাউসগুলি পুষ্টিতে ভরপুর এবং আপনার স্বাস্থ্য এবং সুস্থতা উন্নত করার জন্য বিভিন্ন উপায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই নির্দেশিকাটিতে, আমরা চিয়া সীড সম্পর্কে আপনার যা জানা দরকার তার সমস্ত কিছু কভার করব, ইতিহাস এবং পুষ্টিগুণ, স্বাস্থ্য উপকারিতা থেকে শুরু করে আপনার দৈনন্দিন রুটিনে সেগুলিকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য টিপস।

পড়তে পারেনঃ
ডায়াবেটিস কত পয়েন্ট থাকলে নরমাল?

সুচিপত্র

    1. চিয়া সীড কি?
    2. চিয়া সীড ইতিহাস
    3. চিয়া সীডের পুষ্টিগুণ
    4. চিয়া সীডের স্বাস্থ্য উপকারিতা
        • উচ্চ ফাইবার
        • ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ
        • অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর
        • ওজন কমাতে সাহায্য করে
        • হাড়ের স্বাস্থ্যকে সমর্থন
        • ব্যায়ামের কর্মক্ষমতা উন্নত করে
        • রক্তচাপ কমাতে পারে
        • মস্তিষ্কের কার্যকারিতা উন্নত করতে পারে
        • প্রদাহ কমাতে পারে
        • স্বাস্থ্যকর ত্বককে সমর্থন করে

5. কীভাবে চিয়া সীড ব্যবহার করবেন

        • চিয়া সীড পুডিং
        • স্মুদি এবং জুস
        • বেকারি পণ্য
        • খাবারের উপরে ছিটিয়ে দেওয়া হয়
    1. চিয়া সীড কেনা এবং সংরক্ষণের জন্য টিপস
    2. সম্ভাব্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া এবং সতর্কতা
    3. উপসঙ্ঘার
    4. চিয়া সীড সম্পর্কে প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

 

চিয়া সীড কি?

চিয়া সীড হল ছোট, কালো বা সাদা বীজ যা সালভিয়া হিস্পানিকা (Salvia hispanica L) উদ্ভিদ থেকে আসে, যা মেক্সিকো এবং গুয়াতেমালার স্থানীয়। এগুলি হাজার হাজার বছর ধরে অ্যাজটেক এবং মায়ানদের দ্বারা খাদ্য উত্স হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। চিয়া বীজের একটি হালকা, বাদামের স্বাদ রয়েছে এবং এটি কাঁচা বা রান্না করে খাওয়া যেতে পারে। এগুলি বহুমুখী উপাদান যা সকালের নাস্তা থেকে ডেজার্ট পর্যন্ত বিভিন্ন খাবারে ব্যবহার করা যেতে পারে।

 

চিয়া সীডের ইতিহাস

এর একটি দীর্ঘ এবং আকর্ষণীয় ইতিহাস রয়েছে। চিয়া সীড অ্যাজটেক এবং মায়ান সভ্যতার মানুষের প্রধান খাদ্য ছিল, যারা বিশ্বাস করত যে চিয়া সীড অতিপ্রাকৃত শক্তি প্রদান করে। “চিয়া” শব্দের প্রকৃত অর্থ মায়ান ভাষায় “শক্তি”। বীজগুলি যোদ্ধা এবং বার্তাবাহকদের দ্বারা দীর্ঘ ভ্রমণ এবং যুদ্ধের সময় টেকসই শক্তি প্রদানের জন্য ব্যবহার করা হয়েছিল।

মেক্সিকোতে স্প্যানিশ বিজয়ের সময়, চিয়া বীজ সুবিধার বাইরে পড়েছিল এবং অন্যান্য ফসল দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়েছিল। যাইহোক, তারা সম্প্রতি স্বাস্থ্য খাদ্য সম্প্রদায়ের মধ্যে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে এবং এখন মুদি দোকানে এবং অনলাইনে ব্যাপকভাবে উপলব্ধ।

 

চিয়া সীডের পুষ্টিগুণ

United States Department of Agriculture (USDA) “ন্যাশনাল নিউট্রিয়েন্ট ডেটাবেস” অনুসারে, ২৮ গ্রাম ( ১ আউন্স) বা ২ ১/২ টেবিল চামচ চিয়া সীড পরিবেশনে নিম্ন লিখিত পুষ্টিগুন পাওয়া যায়ঃ 

    • ১৩৮ ক্যালোরি (kcal)
    • চর্বি ৮.৪ গ্রাম
    • কার্বোহাইড্রেট ১৩.০৭ গ্রাম
    • ফাইবার ১১.২ গ্রাম 
    • প্রোটিন  ৫.৬ গ্রাম 
    • চিনি  0 গ্রাম 

চিয়া বীজ এছাড়াও রয়েছে:

    • ক্যালসিয়াম
    • দস্তা
    • লোহা
    • ম্যাগনেসিয়াম
    • ফসফরাস

এগুলিতে ফোলেট, ভিটামিন এ এবং কপারের মতো অন্যান্য অনেক পুষ্টির পরিমাণও কম থাকে।

 

চিয়া সীডের স্বাস্থ্য উপকারিতা

চিয়া সীড বিস্তৃত স্বাস্থ্য সুবিধা প্রদান করে, যার মধ্যে রয়েছে:

উচ্চ ফাইবারঃ

চিয়া সীড দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় ফাইবার সমৃদ্ধ, যা হজমের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে, রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে এবং কোলেস্টেরল কমাতে পারে।

ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধঃ

চিয়া সীড ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের অন্যতম সেরা উদ্ভিদ-ভিত্তিক উৎস, যা প্রদাহ কমাতে, মস্তিষ্কের কার্যকারিতা উন্নত করতে এবং হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্যকে সমর্থন করতে সাহায্য করে।

অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুরঃ

চিয়া সীড অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর, যা অক্সিডেটিভ স্ট্রেস থেকে রক্ষা করতে পারে, প্রদাহ কমাতে পারে এবং দীর্ঘস্থায়ী রোগ প্রতিরোধ করতে পারে।

ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারেঃ

চিয়া বীজে ক্যালোরি কম কিন্তু ফাইবার এবং প্রোটিন বেশি, যা পূর্ণতা অনুভব করতে, অতিরিক্ত খাওয়া কমাতে এবং ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে।

হাড়ের স্বাস্থ্যকে সমর্থন করেঃ

চিয়া বীজ ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ফসফরাসের একটি ভাল উৎস, যা হাড়ের স্বাস্থ্য এবং ঘনত্বের জন্য প্রয়োজনীয় খনিজ।

ব্যায়ামের কর্মক্ষমতা উন্নত করতে পারেঃ

চিয়া বীজ তাদের উচ্চ পুষ্টি উপাদান এবং জল শোষণ করার ক্ষমতার কারণে ব্যায়ামের সময় টেকসই শক্তি এবং হাইড্রেশন প্রদান করতে পারে।

রক্তচাপ কমাতে পারেঃ

চিয়া সীড উচ্চ মাত্রার ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড এবং ফাইবার রক্তচাপ কমাতে এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করতে পারে।

মস্তিষ্কের কার্যকারিতা উন্নত করতে পারেঃ

চিয়া সীড ওমেগা -3 ফ্যাটি অ্যাসিড এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলি জ্ঞানীয় কার্যকারিতা, স্মৃতিশক্তি এবং ফোকাস উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে।

প্রদাহ কমাতে পারেঃ

চিয়া সীড অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড প্রদাহ কমাতে সাহায্য করতে পারে, যা অনেক দীর্ঘস্থায়ী রোগের মূল অবদানকারী।

স্বাস্থ্যকর ত্বককে সমর্থন করেঃ

চিয়া সীড অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ওমেগা -3 ফ্যাটি অ্যাসিড এবং অন্যান্য পুষ্টিতে সমৃদ্ধ যা ত্বকের হাইড্রেশন উন্নত করতে, প্রদাহ কমাতে এবং সূর্যের ক্ষতি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করতে পারে।

 

কীভাবে চিয়া সীড ব্যবহার করবেন?

এখানে চিয়া বীজ ব্যবহার করার কিছু জনপ্রিয় উপায় রয়েছে:

চিয়া সীড পুডিং

এটি একটি সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর ব্রেকফাস্ট বা জলখাবার। এটি তৈরি করতে, কেবল আপনার প্রিয় দুধ, মিষ্টি এবং স্বাদের সাথে চিয়া সীড মিশ্রিত করুন। মিশ্রণটিকে কয়েক ঘন্টা ঘন হতে দিন এবং একটি ক্রিমি পুডিং-এর মতো টেক্সচার তৈরি করুন।

জুস

চিয়া সীড জুসে যোগ করা যেতে পারে, তাদের পুষ্টি বাড়াতে এবং কিছুটা গঠন যোগ করতে। আপনার ব্লেন্ডার বা জুসারে এক টেবিল চামচ বা দুটি চিয়া বীজ ছিটিয়ে দিন এবং মসৃণ হওয়া পর্যন্ত মিশ্রিত করুন।

বেকারি পণ্য

পুষ্টি এবং গঠন যোগ করতে চিয়া সীড রুটি, মাফিন এবং কেক মতো বেকারি পণ্যগুলিতে যোগ করা যেতে পারে। আপনার প্রিয় রেসিপিতে এক টেবিল চামচ বা দুটি চিয়া বীজ মেশানোর চেষ্টা করুন।

খাবারের উপরে ছিটিয়ে দেওয়া হয়

অতিরিক্ত পুষ্টি এবং গঠনের জন্য ওটমিল, দই এবং সালাদের মতো খাবারের উপরে চিয়া বীজ ছিটিয়ে দেওয়া যেতে পারে। আপনার প্রিয় খাবারে এক টেবিল চামচ বা দুটি চিয়া বীজ যোগ করার চেষ্টা করুন।

 

চিয়া সীড কেনা এবং সংরক্ষণের জন্য টিপস

চিয়া বীজ কেনার সময়, জৈব এবং নন-জিএমওর জন্য দেখুন। এগুলি একটি শীতল, শুষ্ক জায়গায় সংরক্ষণ করা উচিত এবং দুই বছর পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। নষ্ট হওয়া রোধ করতে, চিয়া সীড একটি বায়ুরোধী পাত্রে সংরক্ষণ করা ভাল।

 

সম্ভাব্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া এবং সতর্কতা

চিয়া সীড সাধারণত বেশিরভাগ মানুষের জন্য নিরাপদ। যাইহোক, কিছু লোক হজমের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া অনুভব করতে পারে যেমন ফোলাভাব, গ্যাস বা ডায়রিয়া। এটাও মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে চিয়া বীজ নির্দিষ্ট ওষুধের সাথে যোগাযোগ করতে পারে, তাই নিয়মিত সেবন করার আগে একজন স্বাস্থ্যসেবা পেশাদারের সাথে পরামর্শ করা ভাল।

আরও পড়ুনঃ
হঠাৎ হার্ট অ্যাটাক হলে কী করবেন?

উপসংহার

চিয়া সীড একটি পুষ্টিকর এবং বহুমুখী উপাদান যা আপনার স্বাস্থ্য এবং সুস্থতা উন্নত করতে বিভিন্ন উপায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এগুলি ফাইবার, প্রোটিন, ওমেগা -3 ফ্যাটি অ্যাসিড এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টিতে ভরপুর। আপনার দৈনন্দিন রুটিনে চিয়া সীডঅন্তর্ভুক্ত করে, আপনি আপনার হার্টের স্বাস্থ্য, হজম স্বাস্থ্য, ওজন ব্যবস্থাপনা, হাড়ের স্বাস্থ্য এবং মস্তিষ্কের কার্যকারিতাকে সমর্থন করতে পারেন। মনে রাখবেন অল্প পরিমাণে শুরু করুন এবং হজমের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া এড়াতে ধীরে ধীরে আপনার গ্রহণ বাড়ান। এবং যদি আপনার কোন উদ্বেগ বা চিকিৎসার অবস্থা থাকে, তাহলে আপনার খাদ্যে চিয়া বীজ যোগ করার আগে একজন স্বাস্থ্যসেবা পেশাদারের সাথে পরামর্শ করা সর্বদা ভাল।

 

চিয়া বীজ সম্পর্কে প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

 

১। চিয়া সীড কি গ্লুটেন-মুক্ত?

হ্যাঁ, চিয়া বীজ প্রাকৃতিকভাবে গ্লুটেন-মুক্ত এবং সেলিয়াক রোগ বা গ্লুটেন সংবেদনশীলতাযুক্ত লোকেদের জন্য নিরাপদ।

 

২। আমার প্রতিদিন কতগুলি চিয়া সীড খাওয়া উচিত?

চিয়া বীজের একটি পরিবেশন আকার সাধারণত ১-২ টেবিল চামচ হয়। হজমের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া এড়াতে অল্প পরিমাণে শুরু করা এবং ধীরে ধীরে আপনার খাওয়ার পরিমাণ বাড়াতে ভাল ।

 

৩। আমি কিভাবে বলতে পারি যে চিয়া সীড নষ্ট হয়ে গেছে?

চিয়া বীজের একটি হালকা, বাদামের সুগন্ধ এবং কিছুটা কুঁচকে যাওয়া টেক্সচার থাকা উচিত। যদি তাদের গন্ধ বা টক স্বাদ থাকে, তবে সেগুলো নষ্ট হয়ে যেতে পারে এবং ফেলে দেওয়া উচিত।

 

৪। আমার যদি বাদামের অ্যালার্জি থাকে তবে কি আমি চিয়া সীড খেতে পারি?

হ্যাঁ, চিয়া সীড গাছের বাদামের সাথে সম্পর্কিত নয় এবং বাদাম এলার্জি আছে এমন লোকেদের খাওয়ার জন্য নিরাপদ।

 

৫। চিয়া সীড কি ওজন কমানোর জন্য ভাল?

এটি ওজন কমানোর জন্য বেশ উপকারী কারণ,  এতে ফাইবার এবং প্রোটিন থাকে, যা পূর্ণতা অনুভব করতে এবং অতিরিক্ত খাওয়া কমাতে সাহায্য করে। যাইহোক, একটি সুষম খাদ্য এবং সক্রিয় জীবনধারার অংশ হিসাবে চিয়া সীড খাওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

 

৬। চিয়া সীড ভিজতে কতক্ষণ লাগে?

রেসিপির উপর নির্ভর করে চিয়া বীজ ভিজতে ২০ মিনিট থেকে কয়েক ঘন্টা সময় নিতে পারে। এই সীড তরল শোষণ করবে এবং একটি জেলের মতো সামঞ্জস্য তৈরি করবে যা বিভিন্ন খাবারে ব্যবহার করা যায়।

 

৭। আমি কি চিয়া সীড কাঁচা খেতে পারি?

হ্যাঁ, চিয়া বীজ কাঁচা বা রান্না করে খাওয়া যেতে পারে। যাইহোক, এগুলি প্রায়শই ভিজিয়ে রাখা হয় বা তরলের সাথে মিশ্রিত করা হয় একটি জেলের মতো সামঞ্জস্য তৈরি করতে এবং তাদের হজম করা সহজ করে তোলে।

 

৮। ত্বকের জন্য চিয়া সীডের স্বাস্থ্য উপকারিতা কি?

চিয়া সীডে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান যা ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতিতে সাহায্য করে। প্রদাহ কমাতে, হাইড্রেশন উন্নত করতে এবং সূর্যের ক্ষতি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করতে পারে।

 

৯। চিয়া সীড কি ক্ষতিকারক হতে পারে?

চিয়া বীজ সাধারণত বেশিরভাগ মানুষের জন্য নিরাপদ। যাইহোক, কিছু লোক কিছু ওষুধের সাথে পাচক পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বা মিথস্ক্রিয়া অনুভব করতে পারে। চিয়া সীড পরিমিতভাবে খাওয়া গুরুত্বপূর্ণ এবং আপনার যদি কোনো উদ্বেগ বা চিকিৎসার অবস্থা থাকে তবে একজন স্বাস্থ্যসেবা পেশাদারের সাথে পরামর্শ করুন।

 

তথ্য সূত্রঃ 

  1. Chia Seeds: Health Benefits, Nutrients, Recipes, and Side Effects” by Megan Ware, RDN, LD on Medical News Today
  2. “Chia Seeds: What Are the Health Benefits?” by Dr. Edward Group on Global Healing
  3. “Chia Seeds: Nutrition, Benefits and Recipe Ideas” by Ryan Raman, MS, RD on Healthline
  4. “Chia Seeds: Ancient Superfood of the Aztecs” by Dr. Josh Axe on Dr. Axe
  5. “Chia Seeds: Superfood or Fad?” by Carrie Dennett, MPH, RDN, CD on Today’s Dietitian
  6. “Chia Seeds: Benefits, Side Effects, and Preparations” by Cathy Wong, ND on Verywell Health

 

রিলেটেড আরও পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!