ডায়াবেটিস কত পয়েন্ট থাকলে নরমাল?

কর্তৃক সরকারি আদেশ
3 মন্তব্য 85015 views
26

বর্তমানে ডায়াবেটিস মেলিটাস রোগটি আমাদের একটি বড় সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই অবস্থায় এই ডায়াবেটিস রোগের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল Blood Glucose level। এটি রক্তে গ্লুকোজ লেভেল কত কি পরিমাপ রয়েছে সেটা আমাদের জেনে নেওয়ার দরকার রয়েছে। আজকের এই লেখায় ডায়াবেটিসের ব্যাপারে যে যে টপিকগুলি আলোচনা করা হয়েছে –

 

ডায়াবেটিস কত পয়েন্ট হলে নরমাল, ডায়াবেটিস কি (What Is Diabetes Bangla), ডায়াবেটিস মাপার নিয়ম, ডায়াবেটিস কিভাবে মাপা হয়, গ্লুকোজের মাত্রা মাপার একক।

আপনারা যারা কিছু জানেন না তাদের Diabetes নিয়ে সংক্ষিপ্ত একটি ধারনা দেওয়ার চেষ্টা করব, আসলে ডায়াবেটিস কি এবং বাড়িতে বসে সঠিক পদ্ধতিতে কিভাবে নির্ণয় করবেন সব কিছু জানতে পারবেন।

ডায়াবেটিস কি (What Is Diabetes)

আমাদের শরীরে এক ধরনের হরমোন রয়েছে যার নাম ইনসুলিন, যার কাজ হল রক্তে শর্করা বা সুগার বা গুলুকজের মাত্রা বজায় রাখে।

কিন্তু ইনসুলিন যখন অগ্নাশয় থেকে সঠিক পরিমানে নিঃসৃত হতে পারেনা, বা আমাদের কোষগুলো ইনসুলিনের উপর কোনো রেসপন্স করেনা তখন আমাদের রক্তে গ্লুকোজের পরিমান বেড়ে যায়। ফলে আমাদের যে রোগটি দেখা যায় তা হল Diabetes mellitus  যাকে আমরা ডায়াবেটিস বলে থাকি।

এটি আবার মুলত তিন ধরনের হতে পারে।

  • Type 1 diabetes
  • Type 2 diabetes
  • Gestational diabetes বা pregnancy diabetes

এখন আমরা ডায়াবেটিস মাপার বিষয়ে সব কিছু জেনে নেবঃ

ডায়াবেটিস কিভাবে মাপা হয়ঃ-

ডায়াবেটিস রোগীদের নিয়মিত রক্তে শর্করার মাত্রা পরীক্ষা করা অত্যন্ত জরুরি। এতে রোগীর খাদ্যাভ্যাস, শরীরচর্চা ও ওষুধের দ্বারা রক্তে শর্করার মাত্রা কতটা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে তা বোঝা যায়। তবে তার জন্য প্রতিবার হাসপাতাল যাওয়া চাইতে একটি গ্লুকোমিটার কেনা অনেক সাশ্রয়ী এবং ঝামেলা মু্ক্ত।

গ্লুকোমিটার নামের যন্ত্রটি ব্যবহার করে  আমরা বাড়িতে বসেই রক্তে শর্করার মাত্রা নির্ণয় করতে পারি। এই যন্ত্র ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতিও জানা থাকা দরকার।

ডায়াবেটিস মাপার নিয়ম

ডায়াবেটিস মাপার জন্য আমরা সাধারণত যেটি পরিমাপ করি তা হল Blood Sugar level তিনটি টেস্টের মাধ্যমে আমরা Blood Sugar level মাপতে পারি।

১. Fasting Blood Sugar Test

সময় – খালি পেটে।

কিভাবে করতে হয় –

এক্ষেত্রে আমাদের ৭-৮ ঘণ্টা খালি পেটে থাকতে হয়। ওই সময় আপনি জল ছাড়া কিছু খেতে পারবেন না। সেজন্য সাধারণত রাত্রে বেলায় খাবার পর সকালে খালি পেটে টেস্ট করা জরুরী ।

২. Glucose Tolerance Test

সময় – খাবার ২ ঘণ্টা পর।

কিভাবে করতে হয় –

সাধারণত কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার খাওয়ার ১.৫-২ ঘণ্টা পর আপনাকে আপনার গ্লুকোজ লেভেল মাপতে হবে। এই টেস্টটি করতে গেলে সবচেয়ে ভালো সঠিক রেজাল্ট পাওয়ার পদ্ধতিটি হল প্রথমে আপনাকে প্রথমে Fasting Blood Sugar Test আপনাকে করতে হবে। এরপর খাবার খাওয়ার ২ ঘণ্টা পর  আপনাকে গ্লুকোজ লেভেল মাপতে হবে। তারপর নিচের তালিকা অনুযায়ী আপনি সঠিক অবস্থাটি নির্ণয় করতে পারবেন

Gestational diabetes test বা pregnancy diabetes দেখার জন্য এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ  একটি পরীক্ষা।

৩. Random Blood Sugar Test

সময় – যেকোনো সময়।

কিভাবে করতে হয় –

এটার জন্য আপনাকে আগের দুটি টেস্টের মতো কোনো কিছুই করতে হবেনা। আপনি যেকোনো মুহূর্তে টেস্ট করতে পারেন।

৪. Hemoglobin A1C (HbA1C)

এই টেস্টটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি টেস্ট , এটিকে A1C টেস্টও বলা হয়ে থাকে। এটি সাধারণত আমাদের গত ২, ৩ মাসের average blood sugar level কে পরিমাপ করে। এটির সাহায্যে type 2 diabetes খুব সহজে নির্ণয় করা যায়।

গ্লুকোমিটার ব্যবহারের সতর্কতা

সাধারণত অনেকেই Glucometer ব্যবহারের সময় অনেক ছোট খাটো ভুল করেন, যার কারণে তাদের রেজাল্টে অনেক ভুল রিডিং আসে। তাই এই যন্ত্র ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতিতে  ব্যাবহার করার কিছু নিয়ম জানা থাকা দরকার।

  • গ্লুকোমিটারের সাহায্যে রক্তে সুগারের মাত্রা পরিমাপের আগে অবশ্যই হাত ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে ডেটল জাতীয় জীবাণুনাশক দিয়ে। কারণ হাত না ধুলে ফলাফল ভুল আসতে পারে।
  • রক্তে শর্করার মাত্রা পরিমাপ করার সময় খাওয়ার ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘণ্টা পরেই মাপতে শুরু করেন অনেকেই। ফলে শর্করার মাত্রা বেশি দেখায় যন্ত্রটি। খাওয়ার পর রক্তে শর্করার মাত্রা মাপার আগে কমপক্ষে ২ ঘণ্টা অপেক্ষা করা উচিত।
  • গ্লুকোমিটারের সুঁচ ফুটানোর আগে হাতে হাত ঘষে সামান্য গরম করে নিন কারন হাত ঠাণ্ডা থাকলে কিংবা রক্ত সঞ্চালনের সমস্যা থাকলে আঙ্গুল থেকে পর্যাপ্ত রক্ত বের নাও হতে পারে।
  • শরীরে জলের অভাব থাকলে তা রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে, তাই সঠিক পরিমানে জল পান করা উচিত।

গ্লুকোজের মাত্রা মাপার একক

সাধারণত blood glucose level  দুটি একক দিয়ে মাপা হয়ে থাকে –

  • মিলিমোল/ লিটার (mmol/l)
  • মিলিগ্রাম/ ডেসিলিটার (mg/dl)

গ্লুকোজ লেভেল বিচারে তিনটি অবস্থা

blood sugar level মাপার ক্ষেত্রে যে রেজাল্ট আমরা পাই সেই অনুযায়ী আমরা তিনটি অবস্থা নির্ণয় করতে পারি।

  • Normal blood sugar level – এক্ষেত্রে আমাদের blood sugar level সাধারণ অবস্থায় থাকে
  • Prediabetes Stage – prediabetes হল যখন আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা Normal blood sugar level এর চেয়ে বেশি। তবে এটি ডাক্তারের পক্ষে ডায়াবেটিস নির্ধারণের পক্ষে পর্যাপ্ত পরিমাণে নয়। তাই এটি হল ডায়াবেটিস পূর্বের স্টেজ। সাধারণত টাইপ 2 ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের প্রায় সবসময় প্রিডায়াবেটিস থাকে।
  • Diabetes Stage – এটি ডায়াবেটিস অবস্থা। এখানে আপনার blood sugar level প্রিডায়াবেটিস স্টেজের তুলনায় অনেক বেশি থাকে।

ডায়াবেটিস কত পয়েন্ট হলে নরমাল

আপনি গ্লুকোমিটারের blood sugar level রেজাল্ট চেক এই টেবিল থেকে মিলিয়ে নিলেই বুঝতে পারবেন আপনি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত কিনা।

  • blood sugar level মুলত দুটি একক দিয়ে মাপা হয়ে থাকে – মিলিমোল/ লিটার (mmol/l) এবং মিলিগ্রাম/ ডেসিলিটার (mg/dl)।
  • টেবিলের বাঁদিকে রয়েছে কোন কোন সময়ে টেস্ট করেছেন যেমন – Fasting (খালি পেটে), After meal (খাবার দুই ঘণ্টা পর), Random(যেকোনো সময়)।
  • এবং টেবিলের উপরে রয়েছে আপনি কোন অবস্থায় রয়েছেন – নরম্যাল (Normal), ডায়াবেটিস পূর্বের স্টেজ (Prediabetes), ডায়াবেটিস (Diabetes)।

26

রিলেটেড আরও পোস্ট

3 মন্তব্য

জেনে নিন ঢাকার সেরা গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের যোগাযোগ নাম্বার February 23, 2023 - 9:12 am

[…] আরও পড়তে পারেনঃ  ডায়াবেটিস কত পয়েন্ট থাকলে নরমাল? […]

উত্তর দিন
আব্দুল মোমিন May 13, 2023 - 2:51 pm

আমার বযস ৩৩ বছর ৬ মাস। গত 06/05/23 তারিখ এ ডায়াবেটিকস পরীক্ষা করে খাবারের আগে 6.7 এবং খাবারের পর 11.2 হয়েছে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে আমার কি ডায়াবেটিকস হয়েছে? না কি অবস্থায় আছে? জানা খুব প্রয়োজন। আর যদি ডায়াবেটিকস হয়েও থাকে তাহলে কি সম্পূর্ণ ভালো হবে না?

উত্তর দিন
সরকারি আদেশ May 20, 2023 - 5:46 pm

আপনি মতো দ্রুত সম্ভব ডাক্তারের পরামর্শ নেন। ডায়াবেটিকস সাধারণত ভালো হয় না , তবে নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় । ভয় এর কিছু নেই ডাঃ এর পরামর্শ নিন সুস্থ থাকবেন। ধন্যবাদ।

উত্তর দিন

মতামত দিন

error: Content is protected !!