শীর্ষ সন্ত্রাসীর নামে চাঁদা দাবি প্রতারণা এড়াতে করণীয়

কর্তৃক সরকারি আদেশ
0 মন্তব্য 250 views

[ যে কোন ধরনের প্রতারণা রোধে বাংলাদেশ পুলিশ সদা সক্রিয়। এ লক্ষ্যে, সন্দেহভাজন প্রতারকদের চিহ্নিত করতে এবং সংগঠিত প্রতারণার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট প্রতারকদের আইনের আওতায় আনতে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশের মাঠপর্যায়ের বিভিন্ন ইউনিট। তবে, শুধুমাত্র আইন প্রয়োগ করে এ ধরনের অপরাধ সম্পূর্ণভাবে নির্মূল করা খুব সহজ নয়। এক্ষেত্রে, সামাজিক সচেতনতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। তাই আসুন এ ধরণের প্রতারণা এড়াতে কিছু সাধারণ পরামর্শ মেনে চলি।]

হঠাৎ অপরিচিত নম্বর থেকে কল আসবে। খুব ভারি ও কর্কশ কন্ঠে পরিচয় দিবে যে, সে অমুক ভাইয়ের (শীর্ষ সন্ত্রাসী) লোক। আপনার পরিবারের সদস্যদের বিস্তারিত বিবরণ দিবে। পরিবারের কে কি করে, কখন বাসা থেকে বের হয়, কোন পথে যাওয়া আসা করে ইত্যাদি গরগর করে বলবে। তারপর ভাইয়ের (শীর্ষ সন্ত্রাসী) নামে বা ভাইয়ের কেস চালানোর খরচ বাবদ বা ভাইয়ের ছেলে-পেলেদের হাত খরচের জন্য চাঁদা দাবি করবে। না দিলে পরিবারের সদস্যদের তুলে নিয়ে যাবে বা পথে ঘাটে ক্ষতি করবে মর্মে হুমকি প্রদান করবে।

ফ্যাক্ট : সাধারণত আপনার এলাকার বখাটে ছেলেরা এ ধরণের কল করে থাকবে। তারা প্রথমে এলাকার সহজ সরল ও নিরীহ প্রকৃতির কাউকে টার্গেট করবে। পরবর্তিতে টার্গেটের পরিবারের সদস্যদের বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করবে। তারপর কল করে কোনো শীর্ষ সন্ত্রাসীর নামে টার্গেটের নিকট চাঁদা দাবি করবে।
পরামর্শ ৪ এ ধরণের কলে বিচলিত না হয়ে কলটি কেটে দিন এবং পরবর্তীতে ঐ নম্বর থেকে আবার কল আসলে কল রিসিভ করা থেকে বিরত থাকুন।

বিঃ দ্রঃ এ ধরণের কল পেলে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবগত করুন।

রিলেটেড আরও পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!