২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অধীন উপজেলা প্রশাসন এর বিভিন্ন উপখাতের বাজেট বরাদ্দ বণ্টন এবং সঠিকভাবে বাজেট ব্যবহারের লক্ষ্যে দিকনির্দেশনা

কর্তৃক সরকারি আদেশ
0 মন্তব্য 292 views

উপর্যুক্ত বিষয়ে নিম্নস্বাক্ষরকারী আদিষ্ট হয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অধীন ১০৭০৩০৫০০০০০০-উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়সমূহের অনুকূলে ২০২২-২৩ অর্থবছরের ০১ জুলাই, ২০২২ হতে ৩০ জুন, ২০২৩ পর্যন্ত সময়ের জন্য পরিচালন কার্যক্রম এর অধীন আবর্তক ব্যয় ও প্রশাসনিক ব্যয় নির্বাহের জন্য এতদসঙ্গে সংযোজিত বিবরণী অনুসারে নিম্নবর্ণিত শর্তে বাজেট বরাদ্দ এবং খরচের মঞ্জুরী জ্ঞাপন করছি:

(ক) অতিরিক্ত ব্যয়ের ক্ষেত্রে ব্যয়োত্তর অনুমোদন প্রদান করা হবে না বিধায় বরাদ্দকৃত অর্থের অতিরিক্ত ব্যয় করা যাবে না;

(খ) প্রদত্ত বরাদ্দ পত্রের বিষয়ে জিজ্ঞাসা থাকলে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করে অবশ্যই এ মন্ত্রণালয়কে অবহিত করতে হবে;

(গ) বরাদ্দকৃত অর্থ সরকারের প্রচলিত আর্থিক ও প্রশাসনিক নিয়মাবলী প্রতিপালন সাপেক্ষে কৃচ্ছসাধনের মাধ্যমে বায় করতে হবে;

(ঘ) অর্থবছর শেষে ১৫ জুলাই তারিখের মধ্যে ব্যয়ের বিবরণীসহ সমর্পণ প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করতে হবে; (ঙ) বিদ্যুৎ বিল নিয়মিত পরিশোধ করতে হবে। বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের সময় এই অধিশাখার পত্র নম্বর-০৫,০০,০০০০ ১১৯.৯৯.০০২.১৭.২৮১, তারিখঃ ২ জানুয়ারী ২০১৭ খ্রিষ্টাব্দ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে (কপি সংযুক্ত)। কোন কারণে বিদ্যুৎ বিল বকেয়া হলে কি কারণে বিদ্যুৎ বিল বকেয়া হয়েছে তার কারণ ব্যাখ্যাসহ অতিরিক্ত বরাদ্দের চাহিদাপত্র প্রেরণ করতে হবে:

(চ) বরাদ্দকৃত বাজেটের ভিত্তিতে অর্থবছরের প্রারম্ভেই বাজেট বাস্তবায়ন পরিকল্পনা গ্রহন করতে হবে এবং সে পরিকল্পনা অনুসরণ করে বায় করতে হবে;

(ছ) অর্থবছরের শেষ পর্যায়ে তড়িঘড়ি করে অর্থ ব্যয় করার প্রবণতা পরিহার করতে হবে;

(জ) বেতন ভাতাদি খাতে বাজেটের বরাদ্দ সীমার মধ্যে আছে কি-না পর্যবেক্ষণ করতে হবে। অতিরিক্ত বরাদ্দের প্রয়োজন হলে যথা সময়ে অতিরিক্ত বরাদ্দের অধিযাচন (চাহিদাপত্র) প্রেরণ করতে হবে।

০২।  জেলা প্রশাসকের অধীন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের অর্গানোগ্রামের সেটআপ অনুযায়ী কর্মরত সংরক্ষিত বিষয়ের (retained subjects) কর্মচারীগণ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের বাজেট বরাদ্দ হতে বেতন ও অন্যান্য ভাতাদি গ্রহণ করবেন।

০৩। জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস উদযাপন ও জনপ্রশাসন পদক প্রদান, উন্নয়ন মেলা এবং আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবসসহ অন্যান্য জাতীয় দিবস উদযাপনের জন্য পরবর্তীতে অধিযাচনের (চাহিদার) ভিত্তিতে ৩২৫৭৩০১- অনুষ্ঠান/উৎসবাদি খাত হতে বরাদ্দ প্রদান করা হবে।

০৪।    ১০৭০৩০৫০০০০০০০-উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সমূহের ৩১১১১১০-ছুটি নগদায়ন বেতন (অফিসার), ৩১১১২০৯-ছুটি নগদায়ন বেতন (কর্মচারী) ৩১১১৩২৬-ভ্রমণ ভাতা, প্রশাসনিক ব্যয়ের ৩২১১১০১-পুরস্কার, ৩২১১১১৫-পানি খাতে এবং মূলধন ব্যয়ের অধীন অন্তর্থিক সম্পদের ৪১১২-যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জামাদি ক্রয়ের (৪১১২২০২-কম্পিউটার ও আনুষাঙ্গিক, ৪১১২২০৪-টেলিযোগাযোগ সরঞ্জামাদি, ৪১১২৩০২-ক্যামেরা ও আনুষাঙ্গিক, ৪১১২৩০৩-বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি, ৪১১২৩১০-অফিস সরঞ্জামাদি ও ৪১১২৩১৪-আসবাবপত্র) খাতে অধিযাচনের ভিত্তিতে পরবর্তীতে বরাদ্দ প্রদান করা হবে। শুধুমাত্র শুদ্ধাচার পুরস্কার ব্যতিত অন্য কোন খাতের ব্যয় পুরস্কার খাত হতে প্রদান করা হবে না।

০৫।   মূলধন ব্যয়ের অধীন অআর্থিক সম্পদের অর্থ অধিযাচন প্রেরণের ক্ষেত্রে বিগত ৩ (তিন) অর্থবছরের বরাদ্দ ও চলতি অর্থ বছরে সংশ্লিষ্ট খাতে অর্থ ব্যয়ের পর বিদ্যমান জের এবং বর্তমান অধিয়াচনের যৌক্তিকতা প্রদর্শন করতে হবে। কম্পিউটার ও অফিস সরঞ্জাম খাতে অধিযাচনের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কম্পিউটার ও অফিস সরঞ্জামের সংখ্যা, কবে ক্রয় করা হয়েছিল? মেরামত যোগ্য কিনা? ইত্যাদি বিস্তারিত তথ্য প্রদান করতে হবে।

০৬। আসবাবপত্র অধিযাচনের ক্ষেত্রে যৌক্তিকতাসহ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নির্ধারীত ছকে বরাদ্দ চাইতে হবে। মূলধন ব্যয়ের অধীন খাতসমূহে অর্থ ব্যয়ের ক্ষেত্রে অর্থ মন্ত্রণালয়ের Delegation of Financial Power এ প্রদত্ত আর্থিক ক্ষমতা এবং প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে PPR অনুসরণ করতে হবে।

০৭।  বাজেট মঞ্জুরীপত্র ইস্যুর সাথে সাথে এ অধিশাখা হতে আইবাস ++ এ সংশ্লিষ্ট উপজেলার বিপরীতে বরাদ্দ এন্ট্রি করা হয়। এ অধিশাখা হতে আইবাস ++ এন্ট্রি প্রদান না করা পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট উপজেলা বরাদ্দ উত্তোলন করতে পারবে না। কাজেই বাজেট মঞ্জুরীপত্র পাওয়ার ৭ কর্মদিবসের মধ্যে সংশ্লিষ্ট হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার কার্যালয়ে যোগাযোগ করে বরাদ্দকৃত অর্থ সঠিকভাবে আইবাস++এ এন্ট্রি করা হয়েছে কিনা নিশ্চিত করতে হবে। মঞ্জুরীপত্রে উল্লেখিত বরাদ্দের অংকের সাথে আইবাস++ এন্ট্রির কোন গড়মিল পাওয়া গেলে বা এন্ট্রি না হয়ে থাকলে তা তাৎক্ষনিকভাবে এ অধিশাখাকে অবহিত করতে হবে।

০৮।  কর্মচারীদের ৩২৫৬১০৬-পোশাকের অধিযাচনের ক্ষেত্রে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কল্যাণ শাখার১৮/১২/০১৮ তারিখেরনং০৫,০০,০০০০.১২৩,০৬,০০১.১৬.১৬-৫৩, নং স্মারকের পরিপত্রের নির্দেশনা অনুসারেপোশাকের প্রাপ্যতা হিসাব করে বরাদ্দ চাইতে হবে।

০৯. উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণদের সার্বক্ষণিক শারীরিক ও বাসভবনের নিরাপত্তায় নিয়োজিত ১ জন পিসি/এপিসি ও ০৯ জনসহ মোট ১০ জন সশস্ত্র আনসার সদস্য ব্যতিত অতিরিক্ত কোন আনসার সদস্যদের বেতন ও ভাতা এ মন্ত্রণালয়ের বাজেট হতে পরিশোধ না করার জন্য স্মারক নং ০৫.০০.০০০০.১১৯,২০.০০১.১৯.২৩, তারিখঃ ১৩.০৬.২০২১ এর মাধ্যমে ইতোমধ্যে দিকনির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সশস্ত্র আনসার সদস্যদের বেতন ও ভাতাদি পরিশোধের সময় চলতি অর্থ বছরের বরাদ্দ হতে বিগত (২০২১-২২) অর্থবছরের কোন বকেয়া পরিশোধ করা যাবে না। অর্থবছরের শেষ প্রান্তে হিসাবরক্ষণ কার্যালয়ের নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে বিধি-বিধান অনুসরণপূর্বক বিল দাখিল এবং আনসার সদস্যদের বেতন ভাতাদি পরিশাধে করতে হবে। এ খাতে পদ্ধতিগত ভুলের জন্য বরাদ্দকৃত বাজেট ব্যবহার না করে বাজেট সমর্পন করা হলে পুনরায় বাজেট বরাদ্দ প্রদান করা হবে না। উপজেলায় নিয়োজিত আনসার সদস্যদের বাজেট বিভাজন সংযুক্ত কাগজে প্রদর্শন করা হলো। বাজেট বিভাজনের প্রদর্শীত খাত ব্যতিত অন্য কোন খাতে আনসার সদস্যদের জন্য ব্যয় করা যাবে না। প্রদর্শীত খাত এবং উল্লেখিত হার ব্যতিত কোন উপজেলায় আনসার সদস্যদের বেতন অতিরিক্ত পরিশোধ করলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এই অতিরিক্ত বরাদ্দ প্রদান করবে না। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের বরাদ্দকৃত অর্থ হতে উপজেলায় নিয়োজিত আনসার সদস্যদের জুন/২০২২ (গত ২০২১-২২ অর্থবছরের) বকেয়া দাবী পরিশোধ করা যাবে না। গত ২০২১-২২ অর্থবছরের কোন বকেয়া দাবী থাকলে বিস্তারিত বর্ণনাসহ পৃথকভাবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বাজেট চাহিদাপত্র প্রেরণ করতে হবে। প্রেরিত চাহিদাপত্রের আলোকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় বরাদ্দ দিলে শুধুমাত্র এই বকেয়া পরিশোধ করা যাবে অন্যথায় নয়।

১০। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরে উপজেলায় নিয়োজিত ১ জন পিসি/এপিসি ৩৯ জন আনসার সদস্যদের বেতন ও ভাতাদি ৩২৫৩১০৩-নিরাপত্তা সেবা (ভাড়ার ভিত্তিতে) খাত হতে পরিশোধের জন্য সকল উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণকে অনুরোধ করা হলো।

রিলেটেড আরও পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!